জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের ১২১ সদস্যের কমিটি গঠন মুফতি ওয়াককাস সভাপতি মুজিবুর মহাসচিব

জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের ১২১ সদস্যের কমিটি গঠন মুফতি ওয়াককাস সভাপতি মুজিবুর মহাসচিব

সাবেক মন্ত্রী মুফতি মুহাম্মদ ওয়াককাসকে সভাপতি ও মুফতি শেখ মুজিবুর রহমানকে মহাসচিব করে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত জাতীয় কনভেনশনে এ কমিটির ঘোষণা দেয়া হয়।

কমিটি ঘোষণা শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুফতি ওয়াককাস বলেন, জমিয়তে আত্মত্যাগের ইতিহাস ভরপুর। অনেকেই জমিয়তের কান্ডারী সেজে নেতা কর্মীদের বিভ্রান্ত করেছে।

তিনি বলেন, এসব বিভ্রান্তকারীরা আমার পদবী প্রসঙ্গে যেসব অপকর্ম করেছে তা পাগলের প্রলাপ ছাড়া আর কিছুই নয়।
তিনি বলেন, ইসলামের কোনো আদর্শ বিলীন করে কাজ করার জন্য জমিয়ত সৃষ্টি হয়নি। যেকোনো মূল্যে জমিয়ত নিয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের প্রতিহত করে জমিয়তের ঐতিহ্য প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

মুফতি ওয়াক্কাস আগামী ৩১ মার্চ ঢাকায় জমিয়তের জাতীয় মহাসমাবেশের ঘোষণা করেন। তিনি এর আগে সব জেলা ও বিভাগে সম্মেলন করে কমিটি গঠনের আহবান জানান। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এসব কর্মসূচি প্রণয়ন চূড়ান্ত করার আহবান জানান তিনি।

নবনির্বাচিত মহাসচিব মুফতি শেখ মুজিবুর রহমান বলেন, অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতার মাধ্যমে যারা জমিয়তকে কলুষিত করেছেন তৃণমূল পর্যায়ে জমিয়তের ভিত্তিকে মজবুত করে তাদের সমুচিত জবাব দিতে হবে। সংগঠনের নির্বাহী সভাপতি মাওলানা মনছুরুল হাসান রায়পুরী বলেন, হক্কানী ওলামায়ে কেরামের নেতৃত্বে জমিয়তের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে জমিয়তকে প্রকৃত ধারায় ফিরিয়ে আনা হবে।

কনভেনশনে ঘোষিত কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ হলেন, নির্বাহী সভাপতি মাওলানা মনছুরুল হাসান রায়পুরী, সহ-সভাপতি মাওলানা অ্যাডভোকেট শাহীনূর পাশা চৌধুরী, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা গোলাম মহিউদ্দিন ইকরাম, যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা আব্দুল মালিক চৌধুরী, মাওলানা আব্দুল হক কাউসারী, মাওলানা ওয়ালী উল্লাহ আরমান, সহকারী মহাসচিব মাওলানা বেলায়েত হোসেন আল ফিরোজি, মাওলানা কেফায়েতুল্লাহ, মুফতি জাকির হোসাইন খান, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি রেজাউল করীম, প্রচার সম্পাদক মুফতি সুলতান আহমদ, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আব্দুল হালীম বিন হারুন, যুব বিষয়ক সম্পাদক মুফতি রেদওয়াননুল বারী সিরাজী, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক তোফায়েল গাজালি।

কনভেনশনে দেশের ৬০টি জেলা, মহানগর ও থানা থেকে আসা প্রতিনিধিবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!