হিরো সাইফুল আজম আমাদের স্মৃতিতে অমলিন থাকবেন: ফিলিস্তিন

পৃথিবীর ২২ জন ‘লিভিং ঈগলের’ অন্যতম, দুঃসাহসী পাইলট গ্রুপ ক্যাপ্টেন (অব.) সাইফুল আজম সোমবার ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

৮০ বছর বয়সী এই সাবেক সংসদ সদস্য ও বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের প্রাক্তন চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে ফিলিস্তিন।

দেশটির সংবাদমাধ্যম কুদস নেটওয়ার্ক সাইফুল আজম মৃত্যুর খবর প্রকাশ করে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৯৬৭ সালের ৬০ দিনের যুদ্ধে তিনিই একমাত্র বৈমানিক, যিনি চার চারটি ইসরায়েলি যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করেন। মাত্র দুইটি অভিযানে ইসরায়েলের বিরুদ্ধে এই বিশ্ব রেকর্ড গড়েন তিনি।

বাংলাদেশি এই সাহসী যোদ্ধা জর্দান, ইরাক ও পাকিস্তানের হয়ে আলাদা আলাদাভাবে লড়েছেন। পাকিস্তান সরকার তাকে দেশটির সামরিক পদক সিতারা-ই-জুরাত সম্মাননায় ভূষিত করেন। ইরাক ও জর্দান থেকেও রাষ্ট্রীয় সম্মাননা পান তিনি। একই সঙ্গে তিনটি দেশ হতে সামরিক সম্মাননা পাওয়া একজন পাইটলের জন্য বিরল ঘটনা।

যুদ্ধবিমান চালনায় অসাধারণ দক্ষতাকে স্বীকৃতি দিয়ে ২০০১ সালে তাকে লিভিং ঈগল উপাধি দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রদূত আহমেদ রাবিঈ বলেন, কিংবদন্তী ‘ঈগল অব দ্য স্কাই’ সাইফুল আজমের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করছি। ফিলিস্তিনের জনগণের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ ও পাকিস্তানে থাকা তার পরিবারের সকল সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, আমাদের হিরো সাইফুল আজম আমাদের মনোজগতে বিরাজমান, তিনি সত্যিকারে তা ছেড়ে যেতে পারেন না। তিনি আমাদের স্মৃতিতে অমলিন থাকবেন।

আহমেদ রাবিঈ আরও বলেন, তিনি অসামান্য এক নায়ক। একনিষ্ঠভাবেই একজন দেশপ্রেমিক ছিলেন তিনি।

সাইফুল আজমের মৃত্যুতে শোক জানিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেন ফিলিস্তিনি ইতিহাসবিদ ওসামা আল আসগর। সাইফুল আজমকে মহান বৈমানিক আখ্যা দেন তিনি। ইসরায়েলের আগ্রাসন থেকে পবিত্র আল আকসা মসজিদ রক্ষায় ফিলিস্তিনিদের সহায়তা করায় বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের অবদান রয়েছে বলেও উল্লেখ করেন আসগর।

টুইটারে এক শোকবার্তায় ফিলিস্তিনি অধ্যাপক নাজি শুকরি লেখেন, ফিলিস্তিনকে ভালোবাসতেন সাইফুল আজম, জেরুজালেমকে রক্ষার জন্য লড়াই করেছেন তিনি। ফিলিস্তিনের প্রখ্যাত সাংবাদিক তামের আল মিশালও সাইফুল আজমের অসামান্য সাহসিকতার প্রশংসা করেছেন।

উৎসঃ দেশ রুপান্তর
প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!