নির্বাচনের আগে এরশাদের চমক- রাঙ্গা ইন, হাওলাদার আউট

জাতীয় পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারকে সরিয়ে দিয়েছেন দলটির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। তাঁর জায়গায় দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার জাতীয় পার্টির এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

মশিউর রহমান রাঙা ও রুহুল আমিন হাওলাদারমসিউর রহমান রাঙ্গা ও রুহুল আমিন হাওলাদার

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মসিউর রহমান রাঙ্গাকে দেওয়া চিঠিতে এরশাদ বলেছেন, ‘আপনাকে জাতীয় পার্টির মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব প্রদান করা হলো। পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্যের পাশাপাশি আপনি এই অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করবেন। জাতীয় পার্টির গঠনতন্ত্রের ২০/১/ক ধারা মোতাবেক এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে, যা অবিলম্বে কার্যকর হবে।’

এ ব্যাপারে মসিউর রহমান রাঙ্গা প্রথম আলোকে বলেন, ‘ঘটনা সত্য। সবার সহযোগিতা চাই।’

জাতীয় পার্টি সূত্র জানায়, সাম্প্রতিক সময়ে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে আর্থিক লেনদেনের অভিযোগ ওঠে। এ নিয়ে দলের অনেক নেতা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। দলের বনানী কার্যালয়ে এ নিয়ে বিক্ষোভ হয়। দলের চেয়ারম্যান এরশাদের পাশাপাশি মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার ও চেয়ারম্যানের রাজনৈতিক সচিব সুনীল শুভ রায়ের বিরুদ্ধে বেশি অভিযোগ ওঠে। সূত্র মনে করছে, এসব অভিযোগের বিষয়ে নিজের দায় এড়াতে মহাসচিবকে সরিয়ে দিয়েছেন এরশাদ। সুনীল শুভ রায়কে এরশাদের সঙ্গে যোগাযোগ একরকম নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে গতকাল রুহুল আমিন হাওলাদারের মনোনয়ন বাতিল হয় ঋণখেলাপির কারণে। পটুয়াখালী-১ আসন থেকে মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন তিনি।

প্রথম আলো

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!