সিলেট-১ আসনে বিএনপির প্রার্থী চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির

মর্যাদাপূর্ণ সিলেট-১ আসনে বিএনপির প্রার্থী হলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির। গত রাত সাড়ে ৮ টার দিকে দলীয় কার্যালয়ে তার হাতে চূড়ান্ত মনোনয়নপত্র তুলে দেয়া হয়েছে। এদিকে- মনোনয়নপত্র হাতে পাওয়ার পর খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির জানিয়েছেন- সবাইকে সঙ্গে নিয়ে তিনি সিলেট-১ আসনটি বেগম খালেদা জিয়াকে উপহার দিতে চান।

সব কল্পনার অবসান হলো সিলেট-১ আসনে। আগেই এ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঘোষণা হয়েছিল অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের ছোটো ভাই ড. একে আব্দুল মোমেনকে। কিন্তু বিএনপি থেকে প্রাথমিক মনোনয়ন দেয়া হয় চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির ও প্রাইভেটাইজেশন কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ইনাম আহমদ চৌধুরীকে। মনোনয়নপত্র দাখিল করে এ দুই নেতা ছিলেন সিলেটের মাঠে। এ নিয়ে দলের নেতাকর্মীরা পড়েছিলেন দ্বিধাদ্বন্ধে।

অবশেষে গতকাল রাত সাড়ে ৮টায় সিলেট-১ আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে খন্দকার আব্দুল মুক্তাদিরকেই মনোনয়ন দেয়া হলো। চূড়ান্ত মনোনয়নপত্র হাতে পাওয়ার কথা স্বীকার করে খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির মানবজমিনকে জানান- রাতে দলীয় কার্যালয়ে তার হাতে মনোনয়নপত্র তুলে দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন- সিলেটে বিএনপির মধ্যে মনোনয়ন নিয়ে প্রতিযোগিতা ছিল। কোনো দ্বন্দ্ব ছিল না। আমরা সবাই ধানের শীষের পক্ষে ঐক্যবদ্ধ আছি। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে এই আসনটি বেগম খালেদা জিয়াকে উপহার দেওয়ার কথা জানান তিনি।

খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির হচ্ছে সিলেট-১ আসনের বিএনপি দলীয় সাবেক এমপি খন্দকার আব্দুল মালিকের ছেলে। ২০০৮ সালের নির্বাচনের পর থেকে তিনি সিলেট-১ আসনের নির্বাচনের টার্গেট নিয়ে মাঠে কাজ করছিলেন। পরবর্তীতে তাকে চেয়ারপার্সনের উপদেষ্ঠা নির্বাচিত করা হয়। ২৪ অক্টোবর সিলেটে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশের দিন তিনি সিলেটে গ্রেপ্তার হয়েছিলেন। প্রায় ১২ দিন কারাভোগের পর তিনি নির্বাচনের মনোনয়নপত্র দাখিলের কয়েকদিন আগে মুক্তি পান।

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!