শোক দিবসের অনুষ্টানে ডেনমার্ক দূতাবাসে আ. লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ. আহত ৭


ডেনমার্ক বাংলাদেশ দূতাবাসে ১৫ অগাস্ট জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্টানে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ৭ জন আহত হয়েছে। এসময় ডেনমার্ক পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে । এতে বিদেশের মাটিতে দেশ ও আওয়ামী লীগের ভাবমূর্তি দারুন ভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে ।

সূত্র জানায়,দূতাবাসে শোক দিবসের অনুষ্ঠানের শুরুতে ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের মোস্তফা মজুমদার বাচ্চু গ্রূপের সাথে অপর গ্রুপ লিংকন মোল্লার গ্রূপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

দেশের নিরাপদ সড়ক অন্দোলনের সময় ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর একজন শাওন শোক দিবসের অনুষ্ঠানে হাজির হলে লিংকন গ্রূপের সাব্বির , সোহাগ , লিমন মিলে দূতাবাস থেকে বাহির করে দিতে গেলে বাচ্চু গ্রূপের লোকজন বাধা প্রদান করে।

সেই সময় বাচ্চু গ্রূপের মাহবুব , শাওন সহ স্বয়ং মোস্তফা মজুমদার বাচ্ছু , নাঈম বাবু আহত হয়। পরবর্তীতে দূতাবাস এর কর্মকর্তার অনুরোধে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠান শুরু হয়। পরে অনুষ্ঠান এর শেষের দিকে আবার মোস্তফা মজুমদার বাচ্চু গ্রূপ পরে সংঘবদ্ধ হয়ে হামলা করলে লিঙ্কন মোল্লা , সাব্বির আহত হয়।

পরে পুলিশ এসে নিয়ন্ত্রনা করে। অবশ্য শাওন নাম যে ছেলেটি গুজব চড়ার অভিযোগ সে বেশি আহত হয়।

সূত্র জানায়, ডেনমার্কে ৫/৬ হাজার বাংলাদেশীর বসবাস এরমধ্যে আওয়ামী লীগের ৩ টি কমিটি বিদ্যমান। প্রায়ই বিবাদমান গ্রুপ গুলোর মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও ইউরোপ আওয়ামী লীগ অবহিত হলেও কোন সাংগঠনিক পদক্ষেপ নেওয়া হয় না।

উল্লেখ ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ এর সভাপতি ইকবাল হোসেন মিঠু ও সাধারণ সম্পাদক ড.বিদ্যুৎ বড়ুয়া সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক অনুমোদিত আরেকটি কমিটি রয়েছে। এই কমিটির বাইরে গিয়ে বাচ্চু -মাহবুব ও লিংকন -সাব্বির আলাদা হয়ে স্বঘোষিত কমিটি ঘোষণা করে কাজ করে , যেখানে বিএনপি জামাত এর লোকজন নিয়ে করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

সূত্র-দেশপ্রিয় নিউজ

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!