রাজধানীতে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা

রাজধানীর তেজগাঁও বেগুনবাড়ি এলাকায় সাগরিকা ওরফে তৃপ্তি (১২) নামের এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। গতকাল সকালে উত্তর বেগুনবাড়ি এলাকার সিদ্দিক মাস্টার ঢালের ৪৭ নম্বর বাসার ২য় তলায় এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল (ঢামেক) কলেজ মর্গে পাঠায়। পুলিশেরও ধারণা, শিশুটিকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। নিহত তৃপ্তি নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ি উপজেলার শুক্কুরপুর গ্রামের হাসান আলীর মেয়ে। তেজগাঁও বিজি প্রেস প্রাইমারি স্কুলের ৫ম শ্রেণিতে পড়ত সে।

নিহতের দুলাভাই মোজাফফর হোসেন জানান, গতকাল সকালে তৃপ্তির মা-বাবা বাসার বাইরে ছিলেন।

সকাল ৭টার দিকে তৃপ্তির বড় বোন কুলসুম তৃপ্তিকে নাস্তা করার জন্য ডাকতে গেলে রুমের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ দেখতে পান। পরে দরজার নিচ দিয়ে তিনি (কুলসুম) দেখেন তৃপ্তি ফ্লোরে পড়ে আছে। এরপর রুমের ভেন্টিলেটর ভেঙে তৃপ্তিকে উদ্ধার করে সমরিতা হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তিনি আরও বলেন, তৃপ্তিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় রুমটি বাইরে থেকে তালা দিয়ে যাওয়া হয়। পরে হাসপাতাল থেকে তৃপ্তির মা আমেনা ও বোন কুলসুমকে বাসায় পাঠিয়ে দিলে তারা গিয়ে রুমের দরজা খুলতেই এক যুবক ভেতর থেকে পালিয়ে যায়।তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার এসআই কামাল হোসেন বলেন, প্রাথমিক ভাবে মনে হচ্ছে, ধর্ষণের পর তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। বাসার সিসিটিভি ক্যামেরা দেখে রুম থেকে পালিয়ে যাওয়া আলম বিশ্বাস নামে এক যুবককে সনাক্ত করা হয়েছে। তাকে আটক করতে অভিযান চলছে।

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!