বিক্ষোভ আর ধর্মঘটে উত্তাল ফ্রান্স : ৩ লাখেরও বেশী মানুষ রাস্থায় নামল

ওমর ফারুক-ফ্রান্স প্যারিস : ট্রেন চালক, শিক্ষক, নার্স ও বিমানসহ বেশ কিছু সরকারি প্রতিষ্ঠানের হাজার-হাজার সরকারি কর্মচারী ফ্রান্সে ম্যাক্রোন সরকারের শ্রমিক নীতির বিরুদ্ধে ধর্মঘট পালন করেছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ফ্রান্স জুড়ে এ ধর্মঘট পালিত হয়। ইমানুয়েল ম্যাক্রোন গত বছর সরকার গঠনের পর দেশের সর্ববৃহত রাষ্ট্রীয় রেলওয়ে-এস এন সি এফ ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে শ্রমিকদের সুযোগ সুবিধা হ্রাস, সরকারি চাররির ক্ষেত্রে বয়সসীমা নির্ধারণ, শ্রমিক ছাঁট্ইা ও নতুন শ্রমিক নিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যাপক সংস্কারের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। এতে ফুঁসে ওঠে রেল ও অন্যান্য সরকারি কাজে নিয়োজিত ৫৪ লাখ শ্রমিক। পরবর্তিতে ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এ্যাডোয়ার ফিলিপ কোনো প্রকার সংদীয় ভোট ছাড়ায় বিশেষ ব্যবস্থার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে এমন ঘোষণা দিলে শ্রমিকরা বৃহস্পতিবার ধর্মঘটের ডাক দেয়। এদিন হাজার-হাজার শ্রমিক কাজ বন্ধ রেখে রাস্তায় নেমে মিছিল-সমাবেশ করে। এসময় পুলিশ তাদের ওপর কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করে।অধিকাংশ গণ-পরিবহণ ও অন্যান্য পাবলিক সার্ভিস প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় অফিসগামী ও ঘরে ফেরা সাধারণ মানুষকে পায়ে হেটে চলাচল করতে দেখা গেছে। বন্ধ ছিলো অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বিমানের ৩০ শতাংশ ফ্লাইট স্থগিত করা হয। এতে ফ্রান্স ভ্রমনে আসা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের মানুষকে সাময়িক দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে।ফ্রান্সের বাঙালী পাড়া খ্যাত প্যরিসের-গার দ্যু নর্দ ঘুরে দেখা গেছে, রাস্তা বন্ধ করে হাজার-হাজার শ্রমিক মিছিল সমাবেশ করছেন। ব্যাবসার এ প্রাণ কেন্দ্রে জনসমাগম কম হওয়ায় বেশ লোকসানে পড়তে হবে বলে জানিয়েছেন অধিকাংশ ব্যবসায়ী।দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্মঘট চলাকালে শ্রমিকরা প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মেক্রোনকে তার নীতি থেকে সরে এসে শ্রমিকদের বেতন ভাতাসহ অন্যান্য সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির আহবান জানান।source:fd.net

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!