‘বল প্রয়োগ না করে চুমু খাবে?’ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের দলীয় কার্যালয়ে হামলার প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘রাস্তায় দাঁড়িয়ে কেউ আওয়ামী লীগ অফিসের দিকে গুলি করতে করতে আসলে তাদেরকে বল প্রয়োগ না করে চুমু খাবে নাকি?’

রোববার বনানীতে শেখ কামালের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে এ কথা বলেন কাদের। শেখ কামালের জন্ম দিন উপলক্ষে সকালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় আওয়ামী লীগ।

শ্রদ্ধা জানানো শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের বলেন, একটি রাজনৈতিক মহলের আচরণের জন্য দেশের মানুষ আজকে ক্ষুব্ধ-বিরক্ত। আমরা জনগণকে এই অশুভ শক্তিকে প্রতিরোধ করার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি। বাচ্চাদের উপর কোন বল প্রয়োগ হবে না। এখন আপনি রাস্তায় দাঁড়িয়ে আওয়ামী লীগ অফিসের দিকে গোলাগুলি করতে করতে আসবেন, তাদেরকে কি বল প্রয়োগ করবে- না চুমু খাবে?

শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নেওয়া হয়েছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আজকে ছাত্রছাত্রীদের নিরাপদ সড়কের দাবিতে যে অরাজনৈতিক আন্দোলন সেই আন্দোলন কারা নোংরা রাজনীতির দিকে নিয়ে যেতে চায়, সেটা গত তিন দিনে পরিষ্কার হয়ে গেছে। গতকাল (শনিবার) তো দিবালোকের মত পরিষ্কার হয়ে গেছে কারা? বিএনপি এবং তাদের উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তির দোসররা নিরীহ কোমলমতিদের আন্দোলনে অনুপ্রবেশ করে এই আন্দোলনকে নোংরা রাজনীতির খেলায় পরিণত করার জন্য তাদের যে তৎপরতা এটা দেশবাসী লক্ষ করেছে। বিএনপি নেতা আমির খসরুর ফোনালাপে তা পরিষ্কার হয়ে গেছে। সে আহ্বান কি অশুভ শক্তির চক্রান্তের প্রমাণ করে না?

ওবায়দুল কাদের বলেন, এই আন্দোলনকে ঘিরে ছাত্র-ছাত্রীদের সামনে দিয়ে পেছনে অনেকে যাদের বয়স ৩৫-৪০ বছর তারা স্কুল কলেজের ড্রেস বানিয়ে নেমেছিল। বিএনপি এবং উগ্র সাম্প্রদায়িক শক্তি ছাত্র-ছাত্রীদের পোশাক পরে নকল আইডি কার্ড বানিয়ে ধোঁকাবাজির নোংরা রাজনীতি করেছে।

স্টার অনলাইন রিপোর্ট

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!