ফ্রান্সের 76 টি মসজিদের বিরুদ্ধে সরকারের পক্ষ থেকে “ব্যাপক পদক্ষেপ” শুরু করা হয়েছে!

বুধবার, ২ডিসেম্বর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী Gerald Darmanin ঘোষণা করেছেন “আমার নির্দেশনা মেনে রাষ্ট্রীয় পরিষেবাগুলি বিচ্ছিন্নতাবাদের বিরুদ্ধে বিশাল এবং অভূতপূর্ব পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। আগত দিনে বিচ্ছিন্নতাবাদের সন্দেহযুক্ত 76 টি মসজিদ চেক করা হবে এবং যেগুলি বন্ধ করতে হবে সেগুলি বন্ধ করে দেওয়া হবে।”,
বৃহস্পতিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ পর্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ বলে বিবেচিত মসজিদ এবং প্রার্থনা কক্ষগুলির বিরুদ্ধে সরকার অভিযান চালাচ্ছে। এই অভিযানটি প্যারিস অঞ্চলে 16 টি এবং ফ্রান্সের বাকী অংশে 60 টি উপাসনালয়কে লক্ষ্যবস্তু করেছে। তাদের মধ্যে, 18টি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অনুরোধে দ্রুত বন্ধ করা যেতে পারে।
সেইন দেনি এলাকার ৩টি মসজিদ অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে বন্ধ করার নির্দেশনা সংক্রান্ত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি নোট দৈনিক Le Figaro পত্রিকার হাতে এসেছে!
প্রথমটি হলো মেয়র কর্তৃক গৃহীত বন্ধের সিদ্ধান্তের বিষয়টি উপেক্ষা করে তারা সেটি খোলা রেখেছেন,,
দ্বিতীয়টি ২০১৯ -এ বন্ধ করা সত্ত্বেও তারা নামাজের আয়োজন চালিয়ে যাচ্ছেন,
এবং তৃতীয়টি মসজিদটি সিকুরিটি কমিশনের নেতিবাচক মতামতের ভিত্তিতে বন্ধের নির্দেশ দেয়া সত্ত্বেও তা কার্যকর করা হয়নি।
“অন্য ১৫ টির মধ্যে পাঁচটি প্যারিসের বাইরের শহরতলিতে বা ইলে-দে-ফ্রান্সের আশেপাশের (Val-d’Oise এ তিনটি , Seine-et-Marne একটি এবং Oise একটি ) এবং 10 টির মধ্যে হরোল্টে Hérault 2, Vaucluse 2, অবশিষ্টগুলো Haute-Garonne, Moselle, Nord, Bas-Rhin, Var অবস্থিত!অবশিষ্ট ৫৮টির বিরুদ্ধে পর্যায়ক্রমে অনুসন্ধান চালিয়ে বছরান্তে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।
আরটিএলকে মন্ত্রী জানান, দেশটির আড়াই হাজারের বেশি মসজিদের মধ্যে মাত্র কয়েকটিকেই উগ্রবাদের প্রচার চালানোর বিষয়ে সন্দেহ করা হচ্ছে৷ তবে দেশজুড়ে উগ্রবাদ ছড়িয়েছে, এমন আশঙ্কা ফ্রান্স সরকার করছে না বলেও জানিয়েছেন তিনি৷ ডারমানিন বলেন, ” ফ্রান্সের প্রায় সব মুসলিমই প্রজাতন্ত্রের আইনকে শ্রদ্ধা করেন এবং এ নিয়ে (উগ্রবাদ) তারাও ব্যথিত৷ ”
সূত্র:https://www.saphirnews.com/Separatisme-une-action-massive-du-gouvernement-lancee-contre-76-mosquees-en-France_a27657.html

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!