প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বাংলাদেশের ধর্মীয় সম্প্রীতির প্রশস্তি পোপের মুখে

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বাংলাদেশের ধর্মীয় সম্প্রীতির প্রশস্তি পোপের মুখে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে বাংলাদেশে আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতির প্রশস্তি করেছেন ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস।
 ভ্যাটিকানে বৈঠকে পোপ রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ায় জন্য বাংলাদেশের সরকার প্রধানেরও প্রশংসা করেন।

আড়াই মাস আগে বাংলাদেশ ঘুরে যাওয়া পোপের সঙ্গে সোমবার ভ্যাটিকানে তার নিজস্ব কার্যালয়ে বৈঠক হয় ইতালি সফররত শেখ হাসিনার।পররাষ্ট্র সচিব মো. শহীদুল হক সাংবাদিকদের বলেন, “সম্প্রতি বাংলাদেশ সফর করে এসেছেন পোপ ফ্রান্সিস। ওই সফরের মাধ্যমে তার বাংলাদেশ সম্পর্কে খুবই ভাল এবং উঁচু মাত্রার ধারণা হয়েছে। উনি অনুভব করেছেন, বাংলাদেশে ধর্মীয় সম্প্রীতি খুব ভালো।”

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, “ধরেই নেয়া হয় যে, মুসলিম প্রধান দেশে সংখ্যালঘুরা একটা খারাপ অবস্থায় আছে। বাংলাদেশ সম্পর্কে সেই ধারণা উনার (পোপ) আগে ছিল কি না জানি না। এখন খুব ইতিবাচক ধারণা হয়েছে।”

বাংলাদেশে ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গাদের আশ্রয় পাওয়াটাও পোপ ‘অত্যন্ত গুরুত্বের’ সঙ্গে দেখছেন বলে জানান শহীদুল হক।

তিনি বলেন, “সবসময় পোপদের অভিবাসী ও রিফিউজিদের বিষয়ে শক্তিশালী কণ্ঠ থাকে। এ বিষয় নিয়ে সবসময় কথা বলেন।

“সেই ক্ষেত্রে উনি শেখ হাসিনার অবস্থানের ভূয়সী প্রশংসা বাংলাদেশে করেছিলেন, এখানেও করেছেন।”

পোপ একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কাছে রোহিঙ্গাদের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ অবস্থা এবং তাদের ‘নিরাপদ ও টেকসই প্রত্যাবর্তন’ নিয়েও জানতে চেয়েছেন বলে জানান শহীদুল হক।

জাতিসংঘের কৃষি উন্নয়ন তহবিলের (আইএফএডি) গভর্নিং কাউন্সিলের সভায় অংশগ্রহণ ও ভ্যাটিকান সফরে রোববার ইতালি পৌঁছেন শেখ হাসিনা।

আইএফএডির প্রেসিডেন্ট গিলবার্ট এফ হংবো ও পোপ ফ্রান্সিসের আমন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রীর চার দিনের এই সরকারি সফর হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!