পাকিস্তানে তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রধানের শপথ, স্বচ্ছতার সঙ্গে নির্বাচন পরিচালনার ঘোষণা

পাকিস্তানে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন সাবেক প্রধান বিচারপতি নাসিরুল মুলক। রাজধানী ইসলামাবাদে প্রেসিডেন্ট হাউজে শুক্রবার এ শপথ অনুষ্ঠান হয়। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন। বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতেই বিলুপ্ত হয়ে যায় পাকিস্তানের চলমান পার্লামেন্ট বা জাতীয় পরিষদের মেয়াদ। এরপরই দু’মাসের মধ্যে জাতীয় নির্বাচন হওয়ার কথা। জাতীয় পরিষদ বিলুপ্ত হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন নাসিরুল মুলক।

এর মধ্য দিয়ে অবসান ঘটলো ক্ষমতাচ্যুত সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের পরে অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা শাহিদ খাকান আব্বাসীর ক্ষমতার মেয়াদ। ওদিকে বিচারপতি নাসিরুল মুলককে সর্বসম্মতিক্রমে তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রধান হিসেবে মনোনীত করে সরকার ও বিরোধীরা। তাকে শপথ বাক্য পাঠ করান প্রেসিডেন্ট মামনুন হোসেন।
এতে উপস্থিত ছিলেন সরকারের শীর্ষ কর্মকর্তারা, সদ্য বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী শাহিদ খাকান আব্বাসী, তিন বাহিনীর প্রধানগণ, সিনেট চেয়ারম্যান সাদিক সাঞ্জরানি ও অন্য বিশিষ্ট অতিথিরা। শপথ অনুষ্ঠানের পরে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধানমন্ত্রী নাসিরুল মুলককে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে গার্ড অব অনার দেয়া হয়।

অনুষ্ঠান শেষে তিনি কথা বলেন সাংবাদিকদের সঙ্গে। জিও নিউজের খবর অনুযায়ী, আলোচনা সাপেক্ষে মন্ত্রীপরিষদ ঘোষণা করা হবে। তবে মন্ত্রীপরিষদ যে ছোট হবে এ বিষয়ে তিনি আশ্বাস দিয়েছেন। বলেছেন, তার প্রথম সিদ্ধান্ত হবে মুখ্য সচিব ফাওয়াদ হাসান ফাওয়াদকে পরিবর্তন করা। তাকে সরিয়ে ওই পদে বসাবেন সোহেল আমিরকে। ফাওয়াদ হাসানকে সরিয়ে সিভিল সার্ভিসেসের মহাপরিচালক করা হয়েছে।

নাসিরুল মুলক বলেছেন, তিনি যথাসময়ের মধ্যে এবং স্বচ্ছতার সঙ্গে নির্বাচন অনুষ্ঠানে বদ্ধপরিকর। তিনি বলেছেন, আমাদের ওপর যে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে তা পূর্ণাঙ্গভাবে পালন করবো আমরা।
শীর্ষনিউজ/এসএসআই

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!