নিউ ইয়র্কে ,নেদারল্যান্ডস, জার্মানি, কানাডা, ফ্রান্স, চিলি ও দক্ষিণ কোরিয়াতে শত শত নারীর টপলেস মিছিল

নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটান। রোববার সেখানে লিঙ্গ সমতার দাবিতে মিছিল করেছেন কয়েক শত নারী। তারাও পুরুষদের মতো একেবারে খালি গায়ে প্রকাশ্যে চলাফেরার অধিকার চান। তাই মিছিলে যারা অংশ নিয়েছিলেন তাদের বক্ষদেশ ছিল একেবারে উন্মুক্ত। তাদের কোমড় থেকে নিচের দিকে পোশাক ছিল। কিন্তু কোমড়ের উপরে কোথাও কোনো পোশাক ছিল না। ফলে এটাকে নগ্ন মিছিল বলে আখ্যায়িত করেছে অনেকে। এ মিছিলের নাম দেয়া হয়েছে ‘গো টপলেস ডে’। এ উপলক্ষ্যে মিছিলে যোগ দিতে আসেন বিভিন্ন বয়সী নারী। তবে তাদের শরীরের উপরের অংশে বা বুকে অন্তর্বাসটুকুও ছিল না। এমনকি স্তনবৃন্ত ছিল উন্মুক্ত। অন্য সময় এমন র‌্যালিতে স্তনবৃন্ত কোনো কস্টটেপ বা পেইন্ট দিয়ে লুকানোর চেষ্টা করা হয়। কিন্তু এদিনের মিছিলে অংশগ্রহণকারী নারীদের বেলায় তা ছিল না। দু’চারজন এভাবে তাদের স্তনবৃন্ত আড়াল করার চেষ্টা করেছেন। বাকিরা ছিলেন উন্মুক্ত। কোন কোনো নরীকে প্রতিবাদী চিহ্ন তুলে ধরতে দেখা যায়। তারা ঘোষণা করেন, যুদ্ধ হলো অশ্লীল, আমাদের স্তনবৃন্ত নয়।

এমন মিছিলের ছবি ছড়িয়ে পড়েছে ইন্টারনেটে। তাতে দেখা যায় ম্যানহাটানের মিডটাউনে অর্ধনগ্ন নারীরা মিছিল করছেন। একেবারে প্রকাশ্য রাজপথে তারা টপলেস। কারো মধ্যে কোনো লজ্জা শরমের বালাই নেই। তারা কেউ হাসছেন। গল্প করছেন। আর মিছিল করছেন। এ সময় তাদের হাতে দেখা যায় পোস্ট। তাতে লেখা ‘ফ্রি দ্য নিপল’। ‘ইওর বডি ইজ নট এ মিসটেক’। ‘লেট আস মেক দ্য বডি নরমাল এগেইন’। র‌্যালির সঙ্গে সঙ্গে একটি গাড়ি অগ্রসর হচ্ছিল। তার ওপর স্তুন আকৃতির একটি বেলুন দেখতে পাওয়া যায়। সাধারণত ১১ই আগস্ট এ র‌্যালি করা হয়। কিন্তু এ বছর তা করা হয়েছে ২৬ শে আগস্ট। ওইদিনটি ‘নারীদের সমতা দিবস’। এ উপলক্ষ্যে এদিন ওই র‌্যালি বের করা হয়। এ দিনটি পালিত হয়েছে নেদারল্যান্ডস, জার্মানি, কানাডা, ফ্রান্স, চিলি ও দক্ষিণ কোরিয়াতে। মানবজমিন

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!