ঢাকা-১৫ আসনের মনোনয়নপত্র নিলেন জামায়াত সেক্রেটারি জেনারেল

 

ঢাকা : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা- ১৫ (মিরপুর-কাফরুল) সংসদীয় আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে বিশিষ্ট চিকিৎসক, ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শীর্ষ নেতা ও বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান মনোনয়পত্র সংগ্রহ করেছেন।
আজ (১৩ নভেম্বর) বেলা ২.৩০ টায় ঢাকার শেগুনবাগিজাস্থ রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের সহকারী সেক্রটারি লস্কর মোহাম্মদ তসলিমের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা তাঁর পক্ষে এই মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের সহকারী সেক্রেটারি মাহফুজুর রহমান, কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য নাজিম উদ্দীন মোল্লা, এ্যাডভোকেট এস এম কামাল উদ্দীন, এ্যাডভোকেট মাঈন উদ্দীন, এ্যাডভোকেট রোকন রেজা শেখ, এ্যাডভোকেট শফিকুর রহমান, এ্যাডভোকেট শরীফ উদ্দীন খন্দকার, এ্যাডভোকেট শাহীন আখতার, এ্যাডভোকেট মীর নূরনবী উজ্জল, এ্যাডভোকেট আসাদ উদ্দীন, এ্যাডভোকেট লুৎফর রহমান আজাদ, এ্যাডভোকেট জোবায়দুর রহমান বাবু, এ্যাডভোকেট আব্দুল হাই চৌধুরী, এ্যাডভোকেট কে এম জসিম উদ্দীন, এ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন, এ্যাডভোকেট নূরে আলম সিদ্দিক ও ছাত্রনেতা সালাহউদ্দীন আইয়ুবী প্রমূখ।

এ উপলক্ষ্যে সকাল থেকেই নেতাকর্মীরা রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ের আশেপাশে জমায়েত হতে থাকেন। জোহর নামাজের পর রিটার্নিং অফিস সংলগ্ন এলাকা নেতাকর্মীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে। এক সময় তা উৎসব মুখর পরিবেশের রূপ নেয়। পরে ডা. শফিকুর রহমানের পক্ষে মনোনয়নপত্র ক্রয় করে শান্তিপূর্ণভাবে নেতাকর্মীরা রিটানিং অফিসারের কার্যালয়  ত্যাগ করেন।

ডা. শফিকুর রহমান দেশের প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলন ও গণমানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় তিনি অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন। সে কারণে ১৯৮২ সালে ছাত্রাবস্থায় তাকে কারাবরণ করতে হয়েছে। বর্তমান অগণতান্ত্রিক ও জুলুমবাজ সরকারের আমলে তিনি বারবার হামলা-মামলা ও জেল-জুলুমের  শিকার হয়েছেন। তিনি ১৯৫৮ সালের ৩১ অক্টোবর মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া থানার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার স্ত্রী ডা. আমিনা বেগমের ৮ম জাতীয় সংসদের সদস্য ছিলেন।
পূর্ব পাকিস্তান জাসদ ছাত্রলীগের মাধ্যমে ছাত্র রাজনীতিতে অংশ গ্রহণ করেন। ১৯৭৩ সালে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত হন। ১৯৭৭ সালে তিনি ইসলামী ছাত্রশিবিরে যোগদান করেন। ১৯৮৪ সালে জামায়াতে ইসলামীতে যোগদান করেন। ডা. শফিকুর রহমান ২০১৬ সালে সেক্রেটারি জেনারেল হিসাবে নিযুক্ত হয়ে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।
শীর্ষনিউজ/এসএসআই

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!