জোটে ২২ আর উন্মুক্তভাবে ১ আসনে লড়বে জামায়াত

প্রথমে ২৫টি আসন বলা হলেও চূড়ান্তভাবে ২২ আসনে জামায়াতের প্রার্থিরা ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করবেন। আর একটি আসনে বিএনপিও জামায়াত উন্মুক্তভাবে নির্বাচনে অংশ নেবে।

যে ২২ আসনে ধানের শীষে লড়বে জামায়াত, তারমধ্যে রয়েছে, ঠাকুরগাঁও-২ মাওলানা আবদুল হাকিম, দিনাজপুর-১ মাওলানা মোহাম্মদ হানিফ, দিনাজপুর-৬ মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম, নীলফামারী-২ মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান মন্টু, নীলফামারী-৩ মোহাম্মদ আজিজুল ইসলাম, রংপুর-৫ অধ্যাপক গোলাম রব্বানী, গাইবান্ধা-১ মাজেদুর রহমান সরকার, সিরাজগঞ্জ-৪ মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান, পাবনা-৫ মাওলানা ইকবাল হুসাইন, ঝিনাইদহ-৩ অধ্যাপক মতিয়ার রহমান, যশোর-২ আবু সাঈদ মুহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন, বাগেরহাট-৩ অ্যাডভোকেট আবদুল ওয়াদুদ, বাগেরহাট-৪ অধ্যাপক আবদুল আলীম, খুলনা-৫ অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার, খুলনা-৬ মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, সাতক্ষীরা-২ মুহাদ্দিস আবদুল খালেক, সাতক্ষীরা-৪ গাজী নজরুল ইসলাম, পিরোজপুর-১ শামীম সাঈদী, ঢাকা-১৫ ডা. শফিকুর রহমান, কুমিল্লা-১১ ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মো. তাহের, চট্টগ্রাম ১৫ আ ন ম শামসুল ইসলাম এবং কক্সবাজার-২ হামিদুর রহমান আজাদ।

যে তিন আসন ছাড়লো জামায়াত

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে দর কষাকষির পর চূড়ান্ত সমঝোতায় বিএনপির অটল অবস্থান ও অনুরোধে রবিউল বাশার (সাতক্ষীরা-৩), ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী (সিলেট-৫) ও হাবিবুর রহমান (সিলেট-৬) আসনগুলোতে ছাড় দিতে সম্মত হয়েছে জামায়াত।

জোটের বাইরে একটি আসনে উন্মুক্ত নির্বাচন করবে বিএনপি-জামায়াত প্রার্থীরা। সেটি হচ্ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩। ওই আসনে জামায়াতের প্রার্থী কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী সেক্রেটারি নুরুল ইসলাম বুলবুল এবং বিএনপি’র প্রার্থী দলটির যুগ্ম মহাসচিব ও সাবেক এমপি হারুনুর রশীদ।

  • নয়া দিগন্ত অনলাইন

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!