খালেদা রোববার আদালতে হাজির হচ্ছেন না  

খালেদা রোববার আদালতে হাজির হচ্ছেন না

বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি-সংক্রান্ত দুর্নীতি মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য আগামীকাল রোববার বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে রাজধানীর বকশীবাজারের বিশেষ আদালতে হাজির করানোর দিন ধার্য রয়েছে। তবে খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করা হচ্ছে না। শনিবার রাতে খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া প্রথম আলোকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

১২ ফেব্রুয়ারি দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে খালেদাকে হাজির করার নির্দেশ দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-২।

বড়পুকুরিয়া কয়লাখনিতে উৎপাদন, ব্যবস্থাপনা ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ঠিকাদার নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে ২০০৮ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় দুদক এ মামলাটি করে। অভিযোগপত্র দেওয়া হয় ২০০৮ সালের ৫ অক্টোবর। মামলাটি অভিযোগ গঠনের শুনানির পর্যায়ে আছে।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া প্রথম আলোকে বলেন, ‘বকশীবাজারের আদালতে বিডিআর বিদ্রোহের একটি বিস্ফোরক মামলার সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য রয়েছে। তাই রোববার খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করা হবে না। তাঁর পক্ষে আদালতে তিনি হাজিরা দেবেন বলে জানান।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৮ ফেব্রুয়ারি ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ খালেদা জিয়ার পাঁচ বছর এবং তাঁর বড় ছেলে তারেক রহমানসহ পাঁচজনের ১০ বছর কারাদণ্ড দেন। এরপর থেকে খালেদাকে পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের কারাগারে রাখা হয়।

খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করানোর পরোয়ানা (প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট বা পিডব্লিউ) জারির আবেদন করেন দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল। সেখানে বলা হয়, রমনা থানার একটি মামলায় খালেদা জিয়া সাজাপ্রাপ্ত হয়ে কারাগারে আছেন। তাই তাঁকে হাজির করানোর জন্য পিডব্লিউ জারি করা হোক। শুনানি নিয়ে আদালত ১২ ফেব্রুয়ারি খালেদাকে হাজির করানোর নির্দেশ দেন। আদালত সূত্র বলছে, ওই দিনই খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজির করানোর জন্য কারাগার কর্তৃপক্ষের কাছে পিডব্লিউ ইস্যু করা হয়।

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!