কানের সেরা পুরস্কার জাপানি পরিচালকের হাতে

ফ্রান্সের বিশ্বখ্যাত কান চলচ্চিত্র উৎসবের সেরা পুরস্কার গেলো জাপানি পরিচালক হিরোকাজু কোরে-এদার হাতে। তাঁর বহুল প্রশংসিত পারিবারিক চলচ্চিত্র ‘শপলিফটার’ পেয়েছে ‘স্বর্ণ পাম’ বা ‘পালমে ডি’ওর’।

প্রথা অনুযায়ী উৎসবের শেষ দিনে (১৯ মে) বিজয়ীদের নাম ঘোষণায় ‘শপলিফটার’-এর পরিচালকের হাতে উঠে কানের সেরা স্বীকৃতি।

গত ৮ মে শুরু হওয়া ১২ দিনের এই উৎসবের মূল আকর্ষণ ‘প্রতিযোগিতা বিভাগ’-এ মোট ২১টি চলচ্চিত্র লড়াই করেছে সেরা পুরস্কার ‘স্বর্ণ পাম’-এর জন্যে।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা জানায়, সব প্রতিযোগীকে হারিয়ে হিরোকাজু হয়ে উঠেন এ বছরের কানের সেরা চলচ্চিত্রকার। পুরস্কার বিতরণীর শেষে প্রদর্শন করা হয় আমেরিকান-ব্রিটিশ পরিচালক টেরি গিলিয়ামের অ্যাডভেঞ্চার কমেডি ‘দ্য ম্যান হু কিল্ড ডন কুইজট’। আর এর মাধ্যমে শেষ হয় কানের মিলনমেলা।

কানের প্রতিযোগিতায় রানার আপের পুরস্কারটি বা গ্র্যান্ড প্রিক্স আসে আমেরিকান চলচ্চিত্রকার স্পাইক লির হাতে- তাঁর ট্রাম্পবিরোধী ‘ব্ল্যাককেক্লান্সম্যান’ চলচ্চিত্রটির জন্যে।

এরপর, জুরি প্রাইজ লাভ করেছেন লেবাননের নারী পরিচালক নাদিন লাবাকি। তাঁর ‘ক্যাপারনাউম’ লাভ করেছে উৎসবের এই তৃতীয় প্রধান বা ব্রোঞ্জ পুরস্কার।

এ বছর কানের ৭১তম আসরে বিশেষ ‘স্বর্ণ পাম’ দেওয়া হয় বর্ষীয়ান ফরাসি পরিচালক জঁ লুক গদারের হাতে। ৮৭ বছর বয়সী এই চলচ্চিত্রগুরুকে পুরস্কারটি দেওয়া হয় তাঁর ‘দ্য ইমেজ বুক’-এর জন্যে।

এছাড়াও, পোল্যান্ডের পরিচালক পাওয়েল পাওলিকভোস্কিকে দেওয়া হয় ‘সেরা পরিচালক’-এর পুরস্কার। তিনি ‘কোল্ড ওয়ার’ চলচ্চিত্রের জন্যে এই সম্মান লাভ করেন।

বেলজিয়ামের নতুন পরিচালক লুকা ধন লাভ করেন ‘ক্যামেরা ডি’ওর’। তাঁর ‘গার্ল’ চলচ্চিত্র নিয়ে তিনি অভিষেক ঘটান কানের মহোৎসবে।

ইরানি পরিচালক জাফর পানাহি তাঁর ‘থ্রি ফেসেস’-এর জন্যে লাভ করেছেন ‘সেরা চিত্রনাট্য’-এর পুরস্কার। তবে, পানাহিকে এই পুরস্কার ভাগ করে নিতে হয়েছে ‘হ্যাপি অ্যাজ লাজারো’-র ইতালীয় পরিচালক অ্যালিস রোহর‌্যাচারের সঙ্গে।

স্টার অনলাইন রিপোর্ট

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!