কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের (বেফাক) সাবেক মহাসচিব নৌকা প্রতীকে নির্বাচনে আগ্রহী।

মাওলানা রুহুল আমিন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট থেকে প্রার্থী হতে চান গোপালগঞ্জের গহরডাঙ্গা মাদ্রাসার মহাপরিচালক মাওলানা রুহুল আমীন। তিনি মাওলানা শামসুল হক ফরিদপুরী (রহ.)-এর সন্তান, আল হাইআতুল উলয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়াহ বাংলাদেশের সদস্য ও কওমি মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের (বেফাক) সাবেক মহাসচিব। তিনি নড়াইল-১ আসন থেকে নৌকা প্রতীকে নির্বাচনে আগ্রহী।

শনিবার (২৫ আগস্ট) সকালে গহরডাঙ্গা মাদ্রাসায় এক শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে নড়াইল-১ আসনের বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, ওয়ার্ড মেম্বার ও সামাজিক-রাজনৈতিক নেতারা মাওলানা রুহুল আমীনের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

মাওলানা রুহুল আমিনের ঘনিষ্ঠ মাওলানা মুহাম্মদ তাসনীম এ তথ্য জানিয়েছেন।

মাওলানা রুহুল আমিন কওমি মাদ্রাসার সরকারি স্বীকৃতির দাবিতে দীর্ঘদিন সক্রিয় ছিলেন। বরাবরই তিনি আওয়ামী লীগের ঘনিষ্ঠ আলেম হিসেবে পরিচিত ছিলেন। আওয়ামী লীগ ধারার রাজনৈতিক সহমর্মিতার কারণে তিনি একসময় বেফাকের মহাসচিব পদ থেকে অপসারিতও হয়েছিলেন, এমন দাবি তার নিজেরই।
মাওলানা রুহুল আমিন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এলাকার মানুষ চাচ্ছেন আমি সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হই। আওয়ামী লীগের জন্য আমি দীর্ঘদিন ধরেই কাজ করে আসছি। আশা করি আমি মহাজোটের সমর্থন পাবো।’
মাওলানা তাসনীম বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, শুভেচ্ছা বিনিময় সভায় নড়াইল-১ (সদর-কালিয়া) আসনের বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, কমিশনার, স্থানীয় সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন তারিকুজ্জামান রেজা, শামিমুর রহমান, চেয়ারম্যান, সালামাবাদ ইউনিয়ন পরিষদ, আলাউদ্দিন চৌধুরী, চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদ, আমিনুল ইসলাম মনি, অহিদুর রহমান হেরা, সাবেক পৌর মেয়র, খালিদ হাসান, যুবলীগের সেক্রেটারি জেনারেল খালিদ হোসেন, ওলামা পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুর রকীব, মাওলানা শাহাদাত, মাওলানা আব্দুল্লাহ, মাওলানা আনিছুজ্জামান, মাওলানা রেজাউল হক, মাওলানা জিনাত আলী, মুফতি শহিদুল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবক লীগের জামাল হোসেনসহ স্থানীয় সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় নেতারা।

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!