অস্ট্রিয়ার সাংবিধানিক আদালত প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হিজাব পরার উপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে

অস্ট্রিয়ার সাংবিধানিক আদালত ২০১৯ সাল থেকে কার্যকর হওয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হিজাব পরার উপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে,কারণ এটি ইসলামকে টার্গেট করে এবং মুসলিম মেয়েদের ইন্টিগ্রেশনকে বাধা দেয়।
আদালত শুক্রবারের রায়ে এই নিষেধাজ্ঞাকে অসাংবিধানিক ঘোষণা করে বলেছে যে এটি অস্ট্রিয়ার ধর্মীয় ও আদর্শিক নিরপেক্ষতার নীতি লঙ্ঘন করে। আদালতের প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টোফ গ্র্যাবেনওয়ার্টার বলেছেন, “স্কুল অন্যান্য বিষয়গুলির মধ্যেও মুক্ত এবং সহনশীলতার প্রাথমিক মূল্যবোধের উপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত ,” তিনি যোগ করেছেন যে, “নির্দিষ্ট ধর্মকে কেন্দ্র করে করা আইনটি সাম্যের নীতির লঙ্ঘন করে”।

Austria’s Constitutional Court has lifted a ban on wearing headscarves in primary schools that was in force since 2019, arguing that it targets Islam and hinders the integration of Muslim girls.
The court declared the ban unconstitutional in a Friday ruling, saying it violates Austria’s principles of religious and ideological neutrality. “The school is based, among other things, on the basic values of openness and tolerance,” the court’s president, Christoph Grabenwarter, said, adding that, by focusing on a specific religion, the legislation infringes upon this principle of equality.

Source: https://on.rt.com/9ukf

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!