প্যারিসে বাংলাদেশী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে সন্ত্রাসীদের হামলায় বি এন পি নেতা জালাল খান সহ কয়েকজন আহত

প্যারিস;গত রোববার রাতে প্যারিসের ম্যাক্স দর্মি এলাকায় বাংলাদেশী মালিকানাধীন একটি মনিহারী দোকানে ১০/১২ জন আফ্রিকান বাজার সওদা করতে এসে টাকা পরিশোধ না করে মালামাল নিয়ে চলে যেতে চায়। এ সময় ‘জাহান ক্যাশ এন্ড ক্যারী’ নামক  দোকানের কর্মচারীরা তাদের বাধা দেয়। এক পর্যায়ে সংঘবদ্ধ আফ্রিকানরা নীরিহ দোকান কর্মচারীদের উপর হামলা করে। সে সময় দোকানের পাশে ফ্রান্স বিএনপি’র সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক খান জালাল সহযোদ্ধাদের নিয়ে অবস্থান করছিলেন। দোকান কর্মচারীদের উপর আফ্রিকানদের হামলার খবর পেয়ে সঙ্গীয় চারজন সহ সেখানে যান। আফ্রিকানদের নিরস্ত করার জন্য তিনি চেষ্টা করলে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে আফ্রিকানরা তাদের উপর চড়াও হয়।
খান জালাল এবং উনার সঙ্গীদের সঙ্গে আফ্রিকানদের ধস্তাধস্তী শুরু হলে সে এলাকায় প্রায় ৫০ জনের বেশী আফ্রিকান লোক এসে মারামারি শুরু করে। পরবর্তীতে পুলিস এসে পরিস্থিতি শান্ত করে।
এ ঘটনায় খান জালাল আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহন করছেন। উনার সঙ্গে আরও আহত হয়েছেন বাংলাদেশী রুমেল. আশিক. রায়েল. তাজুল. সালেহ এবং নাম নাজানা পাচজন আফ্রিকান।
অতিসম্প্রতি প্যারিসের বাঙ্গালী অধ্যূষিত এলাকা গার দু নর্দে কতিপয় আফ্রিকানের নির্যাতনের শিকার হয়েছেন এক মধ্যবয়সী বাংলাদেশী। এ এলাকায় অনেক বাঙ্গালীর বিচরন স্বত্বেও দৃশ্যমান কোন প্রতিবাদ গড়ে উঠেনি।আফ্রিকানদের অন্যায়ের প্রতিবাদ করার জন্য খান জালাল সাহসিকতার সঙ্গে মোকাবেলা করে যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন তা আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য অনুকরনীয় দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!