কাতারকে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আহ্বান স্পিকারের

কাতার প্রতিনিধি

বর্তমান বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী রাষ্ট্র কাতারকে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ, ওষুধ ও আইসিটি খাতে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। শুক্রবার কাতারের দোহায় ১৪০তম আইপিইউ অ্যাসেম্বলির মূল ভেন্যু শেরাটন কনভেনশন সেন্টারে কাতারের শুরা কাউন্সিলের স্পিকার আহমাদ বিন আবদুল্লা বিন জায়েদ আল মাহমুদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে তিনি এ আহ্বান জানান।

কাতারকে বাংলাদেশে বিনিয়োগে আহ্বান স্পিকারের

সাক্ষাৎকালে দুই স্পিকার সংসদীয় গণতন্ত্র, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন এবং দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্কোন্নয়ন ও বাণিজ্যের প্রসার নিয়ে আলোচনা করেন।

বাংলাদেশের সাথে কাতারের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে উল্লেখ করে স্পিকার শিরিন শারমিন বলেন, সংসদ সদস্যদের মধ্য পারস্পরিক সফর ও অভিজ্ঞতা বিনিময় ভবিষ্যতে এ সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় করবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন ‘উন্নয়ন বিস্ময়’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, এক সময়ের খাদ্য ঘাটতির দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের মাধ্যমে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সক্ষম হয়েছে। নিজ দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে খাদ্য রপ্তানির দ্বারপ্রান্তে এখন বাংলাদেশ ।

বাংলাদেশের বিদ্যুৎ উৎপাদনে সফলতা নিয়ে কথা বলেন স্পিকার। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার আগে বিদ্যুৎ উৎপাদন ছিল ৩৫০০ মেগাওয়াট। সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনার মাধ্যমে বর্তমানে বিদ্যুৎ উৎপাদন ২০ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত হয়েছে।

এসময় তিনি বিদ্যুৎ সেক্টরে কাতার সরকারকে বিনিয়োগ করার আহ্বান জানান।

স্পিকার বলেন, বাংলাদেশে এখন বিনিয়োগের সুষ্ঠু পরিবেশ রয়েছে। সারাদেশে সরকার ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন করেছে। তিনি এর একটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের জন্য কাতারের প্রতি আহ্বান জানান। এছাড়াও তিনি ঔষধ ও আইসিটি খাতে কাতার সরকারকে বিনিয়োগ করার আহবান জানান।

কাতারের শুরা কাউন্সিলের স্পিকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ায় অভিনন্দন জানান। তিনি বাংলাদেশের সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে  অভূতপূর্ব উন্নয়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বাণিজ্য প্রসারে কাতার বাংলাদেশে বিনিয়োগ করবেন মর্মে স্পিকারকে আশ্বস্ত করেন। তিনি দু’দেশের জনগণের মধ্যে নিবিড় সম্পর্ক স্থাপনে কাতারের আগ্রহের কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করেন।

ড.  শিরীন শারমিন চৌধুরী কাতারে অনুষ্ঠিতব্য ১৪০তম এসেম্বলির সার্বিক সফলতা কামনা করেন। তিনি ২০২২ সালে কাতারে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের সফলতা কামনা করেন এবং শুরা কাউন্সিলের স্পিকারকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান।

এসময় জাতীয় সংসদের হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি এমপি, জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমদ খান এবং কাতারে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ আহমদ উপস্থিত ছিলেন।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

মন্তব্য করুন

অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার মন্তব্য লিখুন!
অনুগ্রহ করিয়া এখানে আপনার নাম লিখুন!